বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৭ আগস্ট ১৯৭৭
গল্প/কবিতা: ৭৫টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৭৭

বিচারক স্কোরঃ ২.১৭ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৬ / ৩.০

চিঠির গল্প.........

প্রেম ফেব্রুয়ারী ২০১৭

ভালবাসার কাব্য.....

প্রেম ফেব্রুয়ারী ২০১৭

স্বপ্নগুলো সেই রয়ে গেলো অধরা.....

কি যেন একটা জানুয়ারী ২০১৭

কবিতা - প্রাপ্তি (জুন ২০১৬)

মোট ভোট ১৬ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৭৭ সুখি হও সবটুকু সুখ নিয়ে......

এই মেঘ এই রোদ্দুর
comment ১৩  favorite ০  import_contacts ৩৮৬
প্রতিনিয়ত একই পথের যাত্রি হয়ে ছুটে চলেছি
পথ ধীর লয়ে
ক্লান্তিহীন দেহখান; অবসাদের ভাড়ে নুয়ে পড়ল
মন গলে ক্ষয়ে ক্ষয়ে;
কতটা সময় গেল অনুসন্ধিৎসায় বয়ে।

হেঁটে যাই একা তাবৎ বিসংবাদ সাথে নিয়ে
পদচিহ্ন রেখে যাই;জগত দেখি বিস্ময়ে
হে ভালবাসা তোমায় দিয়েই দিলুম ছুটি
দীর্ঘশ্বাস পড়ে চুয়ে চুয়ে,
খানাখন্দ পথে ভালবাসা খায় লুটোপুটি,
স্পর্শ নেই মাটিতে নুয়ে ।

ধৈর্য্যের ওপারে সুখ আছে? এগোই মন্থর অপরাধী পায়ে
ফের নব প্রভাতের আশায় কাটিয়ে দেই একাধিক বিভাবরী,
অনির্ণীত আশাগুলো থাকে অবসন্ন শুয়ে,
অনির্বেদ দিবাকর হট্টহাসি দিয়ে
দিনের আলোটা দেয় সহসা নিভিয়ে;
অথচ সুর্য দেখব বলে কাটিয়েছি একেকটি দিন,
আলো বুকের ভিতর রেখেছি জড়িয়ে।

আর কতটা পথ আগালে পাব মেওয়া?
পথে পথে আছে বিষকাঁটা সর্বত্র ছড়ায়ে,
রক্তাক্ত পদযুগল, তীক্ততাই হয়ে রয় সাথী,
অসীম শুন্যতা যেনো ঐ আছে দাঁড়ায়ে;
সব সুখ নিয়ে যদি পার সুখি হও;
স্বাধ জেগেছে আমার অন্তিমে যেতে হারায়ে;
ধৈর্য্যের সে নেশা আর মায়া হলো ছিন্ন আজ;
শুভ্র মেঘেরা ডাকছে দেখ হাত বাড়ায়ে!!
প্রাপ্তির ঝুলিটা দিয়ে গেলাম তোমার হাতে
খুলে দেখো নির্দ্বিধায়, কোনো এক বিষন্ন প্রভাতে।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন