বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২১ সেপ্টেম্বর ১৯৬৫
গল্প/কবিতা: ৫৩টি

কোথায় পাব তারে

প্রেম ফেব্রুয়ারী ২০১৭

সূতোর প’রে যে জীবন

আমার আমি অক্টোবর ২০১৬

ভালোবাসার অন্তরালে

ঘৃণা সেপ্টেম্বর ২০১৬

পরিবার (এপ্রিল ২০১৩)

ভাঙ্গা-গড়ার গান

রীতা রায় মিঠু
comment ২৬  favorite ০  import_contacts ১,০৩৮
জীবনের প্রথম কুড়িটি বছর
কাটিয়েছি, বাবা-মা তিন ভায়ের
সাথে, মিলেমিশে একাকাকার হয়ে।
কুড়িতম বসন্তে পেয়েছি তার দেখা,
প্রথমে পরিচয়, পরিচয় গড়িয়ে গড়িয়ে
প্রনয়, প্রনয় পূর্ণতা পায় পরিনয়ে।
মুছে যায় স্মৃতি থেকে কুড়ি বছরের
একান্ত অতীত, আত্মার মাটিতে গড়া
শুদ্ধ প্রিয়জন, নতুন রঙে এঁকে যেতে
থাকি, দু’জোড়া পায়ে চলার পথ।
সে পথে এসে যুক্ত হয় একে একে
আরও তিন জোড়া পা, পঞ্চফুলের
অনবদ্য মালা গাঁথা হয়ে যায়।

আবারও কুড়ি বছরের হিসেব শুরু
হয়, পঞ্চফুলে গাঁথা মালা হতে, খসে
যায় পূর্ণ প্রস্ফূটিত গোলাপী গোলাপ,
পঞ্চফুলের মালায় সুস্পষ্ট নীলের ছোপ,
চারটি ফুল থেকে আরও একটি ঝরে
যাওয়ার অপেক্ষা, পঞ্চফুলের মালা
ছোট হয়ে আসে, গাঁথা হতে থাকে
জোড়া পদ্মের নতুন মালা, কিছু সূতো
বাড়তি থাকে, আরও নতুন ফুলের আশায়।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন