বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২৭ অক্টোবর ১৯৭৩
গল্প/কবিতা: ৫৪টি

সমন্বিত স্কোর

৪.৭৮

বিচারক স্কোরঃ ২.৬৮ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ২.১ / ৩.০

পতঙ্গ মন

কি যেন একটা জানুয়ারী ২০১৭

দানবীয় বর্তমান

এ কেমন প্রেম? আগস্ট ২০১৬

বিশ্ব সৃজনে আমরা

ফাল্গুন ফেব্রুয়ারী ২০১৬

দেশপ্রেম (ডিসেম্বর ২০১৩)

মোট ভোট ৩৫ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৪.৭৮ সূর্য সৈনিক 'মাস্টার দা'

প্রদ্যোত
comment ১৯  favorite ১  import_contacts ৭০১
১২ জানুয়ারী ১৯৩৪
একরাশ সূর্যকিরণ ছড়িয়ে সহাস্যে উঠেছিলে ফাঁসির মঞ্চে
দৃঢ় প্রত্যয়ী এক মানবাত্মা হয়েছিল মুক্ত
মিশেছিল পরমাত্মায় বীরের প্রত্যয় নিয়ে
কিন্তু রেখে গিয়েছিল এক অনাগত বিস্ফোরণের বারতা
যেমন এক মহাবিস্ফোরণে অনেক বিলিয়ন বছর আগে
সৃষ্টি হয়েছিল মহাবিশ্বের

তুমি পুনর্জন্মে বিশ্বাসী ছিলে কিনা জানা নেই
শুধু জেনেছি সব স্বপ্ন পূরণের আগেই ঠিক আমারি বয়সে
পরেছিলে জ্বান্তার করাল গ্রাসে
তুমি, প্রীতিলতা, কানাইলাল কলম-কালি ছেড়ে
হাতে নিয়েছেলে আগ্নেয়াস্ত্র, লাল বর্ণে লিখেছো বিদ্রোহের দিনলিপি

তোমার আত্মবিসর্জনের আটটি দশক অতিক্রান্ত হয়েছে
এসেছে জ্বান্তার পর জ্বান্তা, কেড়ে নিয়েছে এ মাটির লক্ষ সুর্য সৈনিককে
তোমার প্রানের বাংলা অজস্রবার করেছে রক্তস্নান
তারপরও পূরণ হয়নি তোমার সুললিত স্বপ্নেরা

আজ এতোটা বছর পর অকস্মাৎ
আমার সমগ্র চেতনা জুড়ে তোমার উপস্থিতি অনুভব করছি
আমার প্রিয়তম শিক্ষার্থীরা যখন আমাকে 'মাস্টার দা' সম্বোধন করলো
আমি রন্ধ্রে রন্ধ্রে উপলব্ধি করলাম তোমাকে
আমি এখন আমার যাবতীয় কলুষতা, অবহেলা আর নিষ্ক্রিয়তাকে
ফাঁসির মঞ্চে উঠাবো, তোমার চেতনায় শুদ্ধ হবো বলে

তোমার সব অপুর্নাঙ্গ স্বপ্নের বাস্তবায়ন চাই আমি
প্রয়োজনে বিপ্লবী থেকে আততায়ী হবো
হাতে তুলে নেবো আধুনিকতম মারনাস্ত্র
আত্মশুদ্ধির আর মাত্র কয়েকটি প্রহর বাকি
আমি বিশুদ্ধ বাঙালি স্বত্ত্বার সুর্য সেন হবো

'হৃদয়ে আমার সূর্য সেনের
নিভৃত বসবাস
এ মাটির সব শত্রুর আমি
করব সর্বনাশ'
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন