বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২৫ নভেম্বর ১৯৯০
গল্প/কবিতা: ১৮টি

বন্দিশালায়

ফাল্গুন ফেব্রুয়ারী ২০১৬

লাইটহাউজ

গভীরতা সেপ্টেম্বর ২০১৫

শূন্যতার অসুখ

ঘৃনা আগস্ট ২০১৫

দিগন্ত (মার্চ ২০১৫)

আমি অভিশপ্ত সিসিফাস

ক্যায়স
comment ১৪  favorite ১  import_contacts ৫২২
এক ছায়াপথ বিস্তৃত নক্ষত্র বাগান ছিল এই হৃদয় প্রাচীরে। রূপকথার সোনালি
প্রজাপতিগুলো ডানামেলে উড়ে বেড়াত সেই নক্ষত্র মেলায়, গাইত সান্ধ্য প্রেমসংগীত।

বড্ড ইচ্ছে ছিল বিস্তৃত নীল সীমানা ছুঁয়ে বাঁধবো ছোট্ট এক চিলেকোঠা
অবাধ্য দিনের ফিনিক হারানো সব উত্তাপ নিভে গেলে,
পৌরাণিক কোন ফিনিক্স হয়ে ভেসে যাব কসমিক শূন্যতায়।

অমর্ত্য কুয়াশার গা ছুঁয়ে নেমে আসা মেনকা- দিয়েছিলো শূন্যতার প্রতিশ্রুতি!
কথা রাখেনি সে! ছিড়ে ফেলেছিল হৃদয়ের গহীনে লুকিয়ে রাখা রুপালী খামের রৌদ্রচিঠিটা,
উড়ে গিয়ে রক্তিম জলের গভীরে আরো গভীরে ঢুকে পড়ে ছেড়া খামের সেই চার বর্ণ।

মহাকাশ পথ পাড়ি দিয়ে আমার গাড় অন্ধকার বেয়ে নেমে আসে মরফিয়াসের মিষ্টি ঘ্রান,
এদিকে নিয়ত মনের ডানা গ্রাস করে চলেছে ইনসমনিয়ার অতল প্রহরীরা।

আমার উদ্ভ্রান্ত শহরের পাতালপুরী আজ তীব্র এসিড বৃষ্টিতে ভিজে অসাড়
পাঁজরে নিথর পড়ে থাকে কিছু কংক্রিটের ব্লক আর পাথরেরা।
মিছিমিছি তবুও পাবার আশায় ভেজা শ্যাওলার পাথরে হড়কে পুরানো সেই রক্তক্ষরণ।

সুরালয় ঠিকানায় ওড়াবো ভেবে স্বপ্নসুতোর দূরত্ব মেপে কিনেছিলাম সাদা একটা ঘুড়ি।
হয়নি! পাথরের ঘুম ভাঙ্গিয়েছি, অভিশাপে-
লাল রক্তের ছোপ লেগে ঘুড়িটা আজ খোলস বন্দি শামুকে।
এখন নক্ষত্রের করুণ সেরেনেডে আকাশ ছুঁয়ে বর্ষা নামলে, সারারাত ডুবি সবুজ মখমলের চাদরে।
বৃষ্টির জল অবশেষে সমুদ্রে গিয়ে পরে- তার স্বাদ নোনা কেন সেই খবর কেউ রাখেনা।

আর আমি নিয়ত বুদ্ধির গোড়ায় ধোঁয়া দেই
অভিকর্ষটানে তোমার কক্ষপথে- দিগন্ত জুড়ে,
সময়ের কাস্তেতে কাটি শুন্যতার ফসল আর বুনে চলি আশার বীজ।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • নাজমুছ - ছায়াদাত ( সবুজ )
    নাজমুছ - ছায়াদাত ( সবুজ ) কবি ভাই আপনি সব সময় যে অসাধারণ ও ব্যতিক্রমী লেখা আমাদের উপহার দেন তা সবাই জানে , এটিও তার বিপরীত কিছু নয় । বেশ ভাল লেখা । শুভেচ্ছা সব সময় ।
    প্রত্যুত্তর . ১৭ মার্চ, ২০১৫
    • ক্যায়স দুঃখিত ব্যস্ততার মাঝে সময় করে উত্তর দিতে পারিনি। সুন্দর মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া।
      প্রত্যুত্তর . ২ এপ্রিল, ২০১৫
  • মুন্না  বড়ুয়া
    মুন্না বড়ুয়া ভাল লিখেছেন। শুভেচ্ছা রইল।
    প্রত্যুত্তর . ১৭ মার্চ, ২০১৫
    • ক্যায়স দুঃখিত ব্যস্ততার মাঝে সময় করে উত্তর দিতে পারিনি। সুন্দর মন্তব্যের জন্য অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া।
      প্রত্যুত্তর . ২ এপ্রিল, ২০১৫
  • ruma hamid
    ruma hamid আমি মন্তব্য দেবার পরেই ভোট দিয়ে থাকি কিন্তু আগের সংখ্যায় তা করতে যেয়ে দেখি ভোটিং বন্ধ ছিল । এবারও বন্ধ । শুভেচ্ছা জানবেন ।
    প্রত্যুত্তর . ২৭ মার্চ, ২০১৫
    • ক্যায়স দুঃখিত ব্যস্ততার মাঝে সময় করে উত্তর দিতে পারিনি। বাই ডিফোলট ভোটিং বন্ধ ছিল আপু। তবে আপনাদের চমৎকার মন্তব্য কিন্তু কম পাওয়া নয়। ভালো থাকবেন সবসময়।
      প্রত্যুত্তর . ২ এপ্রিল, ২০১৫