বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১ জুলাই ১৯৮৩
গল্প/কবিতা: ১৮টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

৫০

অতল শুন্যতায়

শুন্যতা অক্টোবর ২০১৩

উড়ছে শাড়ি

শাড়ী সেপ্টেম্বর ২০১২

ঝর্নাজল দেবিকার স্নানে

বৃষ্টি আগস্ট ২০১২

মুক্তিযোদ্ধা (ডিসেম্বর ২০১২)

মোট ভোট ৫০ অশ্রুজলের শপথ

এ কে এম মাজহারুল আবেদিন
comment ২৭  favorite ১  import_contacts ৪২৫
ক্লান্তির গ্লানি তারে করে না মন্থর,
অহরহ অসহ্য পোকা মাকড় তারে করে না স্থবির,
দু পায়ের আঙ্গুলের ফাঁকে,
লেগে আছে হাজারো মাটির আর ধুলির কণিকা,
প্লাবন ছুয়ে যাওয়া মাথায় এলো মেলো চুল তারে করে না বিভ্রান্ত,
বৈশ্বিক অস্থিরতা তার কাঁধের বোঝা হয় না লহমায় |

আকরিক ছোট্ট নুড়ি পাথর তার পায়ের তালুতে একেছে
কোনো অজানা দেশের মানচিত্র - লাল রঙের,
বহুরূপী বাতাস তার গতিকে পারেনি রুখতে ক্ষণিক |
আজানুলম্বিত বস্ত্র তার, অনেক জোড়া তালির ফসল,
তবু তার পায়ে জড়ায়না ছুটে আসা সুতো |

হাঙ্গরের উদাত্ত হা এর মত তেড়ে এসেও,
আঘাত করতে পারেনি অগণিত দিনের
জমে থাকা হিংস্র ক্ষিধে |
তিয়াসা ম্লান হয়েছে জুলফির চুইয়ে পড়া নোনতা ঘামে,
তবু জলের স্পর্শের জন্যে আকুল হয়নি সেই জিহ্বা |

মাঝে মাঝে একলা ক্ষণে,
রাতের গহীন আঁধার চিরে উকি দিয়ে গেছে,
কান্না ভেজা মায়াময়ী মুখ - মায়ের |
তবু অক্লেশে চোখের জল স্পর্শ করে করেছে শপথ,
দু হাতে জড়িয়ে ধরে মায়ের বুকে মাথা রাখবে একদিন
কোনো বাধাহীন ক্ষণে |

চোখের গহিনে জমে থাকা হৃদয়ের ব্যথার জল
মণিকে করেছে আগুন লাল,
সেই আগুন ঝরে পড়ে তার হাত হয়ে,
পায়ের গোড়ালি হয়ে মাটির বুক চিরে
মাটিরে করে তোলে কঠিন প্রানের |

তবু সে থামেনি মুহূর্ত এক,
তবু সে করেনি কোনো আপোষ,
তবু সে নেই নি বিশ্রাম ক্ষনিকের,
তবু সে অপেক্ষা করেনি কোনো বায়বীয় সাহায্যের |

কারণ সে জানে,
শুধু তার কাঁধের ওপর,
সাড়ে সাত কোটি মানুষের মুক্তির অঙ্গীকার |
তার মাথার ওপর মায়ের শেষ চোখের জল |

দু হাতের শক্ত থাবায় ধরে থাকা
তার অস্ত্রের অঙ্কুরিত শব্দের স্রোতে,
তাকে ভাসিয়ে দিতে হবে সব কলঙ্কিত থাবা -
নিতে হবে মায়ের অপমানের প্রতিশোধ,
ছাপ্পান্ন হাজার বর্গ মাইলের প্রতিটি মাটির কণায়
ছড়িয়ে দিতে হবে শত্রুর চিতার ছাই |

তারপর,
এক বাধাহীন ক্ষণে,
শান্তির মুক্ত মাটিতে,
দু হাতে জড়িয়ে ধরে
ক্লান্ত মাথা তাকে রাখতে হবে,
মায়ের বুকের জমিনে, দীর্ঘক্ষণ |
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন