বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১০ অক্টোবর ১৯৭৩
গল্প/কবিতা: ৮টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

৬৪

আহ্বান

নতুন এপ্রিল ২০১২

আমায় তোরা ঘাঁটাসনে

গর্ব অক্টোবর ২০১১

আমার বর্ষা-স্নাত কৈশর

বর্ষা আগস্ট ২০১১

মুক্তির চেতনা (মার্চ ২০১২)

মোট ভোট ৬৪ অনাগত সন্তানের প্রতি

সেনা মুরসালিন
comment ৩২  favorite ২  import_contacts ৪১৯
সোনামনি,
তুমি আসবে বলে
আমি আমার ক্ষনিকের প্রণয়ের
পরিনতী টেনেছিলাম
‘আনন্দ রথের’ সাথী হয়ে।
তোমার বীজ বুনেছিলাম
শ্রাবন শিক্ত ভালবাসায়
সুফলা এক বঙ্গ ললনার গর্ভে।
চেয়েছি, এই বঙ্গ-গর্ভেই বেড়ে উঠুক
তোমার অস্থি-মজ্জা।
তোমার হৃৎস্পন্দনের ঝঙ্কার উঠুক
বঙ্গ-ভাষী এই মায়ের জঠরে।

তুমি একটু একটু করে হাটতে শিখবে বলে
সহস্রাধিক বৎসরের ঐতিহ্যের
এই বাঙ্গাল মুলুক কে
সজ্জিত করেছি চির হরিৎ সমভূমিতে।
তোমার সদ্যজাত ফুস্‌ফুস্‌ এ
সতেজ বাতাস দেব বলে
মৌসুমী বাতাসকে ধরে রেখেছি
হিমালয় থেকে বঙ্গপোসাগরে।
ষড় ঋতুতে মন রাঙ্গাবো তোমার
তাই এ মাটিকে সুজলা করেছি।

অতীশ দীপঙ্কর, বিদ্যাসাগর, রাজা রামমোহন,
জগদিশ চন্দ্র বসু, রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, লালন বা হাসন
তোমার অহং বোধ প্রস্তুত করব বলে
এ ভূম-এর কিছু ‘অহংকার’ জাপ্টে ধরে রেখেছি।

জানি, একদিন করবে জয় নিশ্চয়।
তাই করিনা কভু ভয়
এসে দেখ, এ মাটির কিছু নির্ভীক সন্তান
তোমাকে দিয়েছে বাঙ্গাল ভাষা,
যে ভাষায় তুমি শিখবে প্রথম কথা-
...মা।
এ ভাষায় তুমি গাইবে গান,
ভালবাসবে এ ভাষাতেই,
এ তোমার মায়ের ভাষা
এ ভাষাতেই করবে অভিমান।

ও সোনা, ...
আমার অনাগত ভবিষ্যৎ।
তুমি জানবে তাদের কথা,
যাঁরা দিয়ে গেছে প্রাণ এ ভাষার তরে
রফিক, সালাম, বরকত।

লাল সবুজের বাংলাদেশে
স্বাধীনতার আবেগ ঘন আবেশে
যারা দিয়েছিল প্রাণ
সেই আবেগ আগলে রেখেছি
তোমায় দেব বলে
তুমিও হবে তাদের মত নির্ভিক সৈনিক
তোমার অট্টহাসিতে উঠবে কেঁপে চারদিক।

এসো তুমি।
প্রতিক্ষায় রয়েছি আমি, আমরা,
এ দেশ, এ পৃথিবী।
তোমার হাতেই তুলে দেব
আমার সমস্ত সঞ্চয় আমার বাঙ্গাল চেতনা
তোমার মনন বিকাশে।

গেয়ে উঠব সেই গান-
‘আজ সৃষ্টি সুখের উল্লাসে’।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন