বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২ জানুয়ারী ২০১৯
গল্প/কবিতা: ২২টি

সমন্বিত স্কোর

৪.০৭

বিচারক স্কোরঃ ২.৭৫ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৩২ / ৩.০

জলের বোন ও একটি আত্নহত্যা

ভৌতিক নভেম্বর ২০১৪

টকটকে ভোর

প্রত্যয় অক্টোবর ২০১৪

করুণ সন্ধ্যার ঘ্রাণ

বৈজ্ঞানিক কল্পকাহিনী সেপ্টেম্বর ২০১৪

উচ্ছ্বাস (জুন ২০১৪)

মোট ভোট ১১ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৪.০৭ থোকা সর্বনাম

প্রজ্ঞা মৌসুমী
comment ৩৫  favorite ৩  import_contacts ১,১১৫
এখানেই
চিচিং ফাঁকের শেষে আমাদের আশ্চর্য আটাশ
অথবা হঠাৎ ঠোঁটের ছবকে অবাক ঊনত্রিশ;
এখানে আসিনি এখনো অথচ এখানে দাঁড়িয়েই
জেনেছি ফুসফুসের বৃত্তান্ত বারবার...

রোদের জিভের তলায় চিচিঙ্গের ফুল
স্বচ্ছল-
হেঁশেলের থেকে দূরে কী ভীষণ আপনজন ওরা!
প্রচ্ছদ পেরোই, ভুলে যাই (ও অথবা যারা
নিকটে এলেই ঘড়ির অ্যালার্ম)- এইসব অযাচিত কুসংস্কার...

এখানেই, বোতামঘরের কাছে থোকা আমি
বঁধুয়া পৃষ্ঠা পেরোই; দেখি- অক্ষরের থালাবাটি,
আণবিক চাবিকাঠি, অতিক্রান্ত যে সমস্ত কাঠগোলাপ...
খুল্‌ যা সিমসিমের মতো অবশেষে আমার নিষণ্ণ এনভেলাপ;
একপাশে রোজকার টেবিল চামচে মেপে নেয়া দুঃখবোধ,
অনাকাঙ্খিত অবরোধ;
অন্য বিপরীতে- বরাবর, বুক উপচানো শ্বেতাভ পেঁয়াজ ফুল...

আর ক্রমশ আমাদের নিয়ন্ত্রিত/ অনিয়ন্ত্রিত সর্বনামের
মধ্যবর্তী পার্থক্য অথবা ঘনিষ্ঠতায় ভেসে যায়
ডাকটিকিট- এক অগাধ ডানার পাখি- আশ্চর্য অ্যালবাট্রস!
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন