বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
গল্প/কবিতা: ১৮টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

২০

সুলক্ষী সেতু

প্রেম ফেব্রুয়ারী ২০১৭

যাত্রা

প্রায়শ্চিত্ত জুন ২০১৬

কাদবার জন্য আমন্ত্রণ

উপলব্ধি এপ্রিল ২০১৬

মা (মে ২০১১)

মোট ভোট ২০ মা

রুহুল আমীন রাজু
comment ১০  favorite ০  import_contacts ৪৯০
: হ্যালো সপ্তর্ষি , খুব মনোযোগ দিয়ে কথাটি শোন...
: বলো শুনছি...তুমি আমাকে হত্যা করতে বলছো ?
: এটাকে তুমি হত্যা বলছ কেন ?
: তাহলে কি বলবো , খুন ? মার্ডার ?
: আহা ,এটা হত্যা-খুন ---------এ জাতীয় কিছুই নয়।
: আচ্ছা , তুমি কি সেকেলেই থাকবে---নাকি আধুনিকতায় থাকবে ?
: হত্যা করলে আধুনিক হওয়া যায় , বাহ আকাশ বাহ-চমৎকার বলেছো!
: দেখো সপ্তর্ষি , বৃহত্তর স্বার্থে কঠিন কিছু করতে হয়। যেমন ক্রসফায়ার।
: তুমি ক্রসফায়ার সমর্থন করো ?
: অফকোর্স , সন্ত্রাসীদের এভাবেই দমন করা উচিত।
: অফকোর্স নট। বিচার বহির্ভূত ভাবে শুধু মানুষ কেনো , কোন প্রাণীকেও হত্যা করা উচিত নয়। তবে কি তোমার অনাগত সন্তান -অপরাধী ? যে তাকে র‍্যাবের হাতে তুলে দিতে হবে !
: হাউ ষ্ট্র্যাঞ্জ আর ইউ ! এটাকে এভাবে দেখছ কেন ? এটাতো চিকিৎসা বিজ্ঞানের একটা অংশ-গর্ভপাত। ভ্রূণটাকে ধ্বংস করে দেওয়া। এখন খুব সহজ পদ্ধতি আবিষ্কৃত হয়েছে। তুমি একটুকুও ব্যথা পাবে না। সামান্য পিপড়ার কামড়। আমি মালিবাগে ভাল একটা ক্লিনিকে কথা বলে সব ঠিক করে রেখেছি। আগামী কালই চল ওখানে।
: আকাশ , দেহে হয়তো আমি ব্যথা পাব না , কিন্তু মানসিকভাবে ভীষণ কষ্ট পাব। আমি সহ্য করতে পারব না। না আকাশ , আমি এই কাজ করতে পারব না , কিছুতেই না।
: প্লিজ সপ্তর্ষি , পাগলামো করো না।
: আমি একটুও পাগলামো করছি না। ও এখন আর ভ্রূণ নেই। পাঁচ মাস হয়ে গেছে। গত পরশু আল্ট্রাসনোগ্রাফ করিয়েছি। ছেলে হয়েছে। জানো , দেখতে কি যে সুন্দর হয়েছে ! থ্রি-ডি আল্ট্রাসনোগ্রাফিতে রঙ্গিন ছবি তোলা হয়েছে। ওর নাক-মুখ পেয়েছে সব তোমার। চোখ দুটো মনে হয় আমার মতো হবে। কি যে এক অদ্ভুত আনন্দের ঝরনা ধারা বইছে আমার ভেতর , তা তোমাকে ফোনে বলে বুঝাতে পারবো না। ছবিটা তুমি দেখবে না ? সপ্তর্ষির দু'চোখ দিয়ে বৃষ্টির মতো পানি ঝরছে।
: তুমি বুঝতে পারছনা , যে আমাদের বিয়ে হয়নি। কাজেই এ সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়া মানে একটা লংকা কাণ্ড ঘটে যাওয়া।
: এমন একটা পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে , তা আমি তোমাকে বহুবার বলেছিলাম। তুমি শুননি।
: দেখো, ভুল তো মানুষেরই হয়।
: হ্যাঁ হয়। ভুল আবার মানুষ সংশোধনও করে। চলো আমরা সংশোধন করি।
: আর সংশোধনের এই পথইতো উত্তম।
: না , অধম এবং নির্মম-ঘৃণ্য!!!
: এ অবস্থায় পৃথিবীর সবাই তা করছে।
: হ্যাঁ করছে , আমি করবো না।
: তুমি কি পৃথিবী থেকে আলাদা ?
: আলাদাই। তোমার চোখে আমাকে সেরকমই তো আবিষ্কার করেছিলে।
: আমি ভুল করেছিলাম। আজ বুঝতে পারছি তুমি বাস্তবতাহীন একটা মেয়ে মাত্র।
: কোনটা বাস্তব আর অবাস্তব-এটুকু বোঝার ৰমতা আমার রয়েছে। ভুল তুমি করনি। ভুল করেছি আমি।তোমার মতো মানুষকে ভালবেসেছিলাম। আমার হাসি পায়-তুমি মানবাধিকার বাস্তবায়ন সংস্থায় কাজ কর। ও হ্যাঁ, তুমি না আমেরিকা যাচ্ছো-এবিষয়ে উচ্চতর ডিগ্রী আনতে? আফসোস হয়, নিজের অনাগত সন্তানকে পৃথিবীর আলো দেখতে দেখতে দিচ্ছ না। তাকে হত্যা করতে মরিয়া হয়ে উঠেছ। শুধু কি তাই ? তুমি যে এখন আমার হৃদয়কেও হত্যা করতে চায়ছো। তোমার নাম আকাশ বলে আমার নাম পাল্টে রেখেছিলে 'সপ্তর্ষি'। তোমার আকাশ থেকে সেই সপ্তর্ষিসহ নতুন আরেকটি গ্রহ ঝরে যাচ্ছে। যাচ্ছে নয় , ছুঁড়ে ফেলে দিচ্ছো। দাও। আকাশ , তুমিও মনোযোগ দিয়ে শোন , আমি এ সন্তানের 'মা' হবো। হবোই।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন
  • খন্দকার নাহিদ হোসেন
    খন্দকার নাহিদ হোসেন ভালো কিছুকে ভালো না বলে উপায় আছে? সত্য বয়ান গুলি শোনা তো দূরের কথা পড়তে গেলেও কেমন যেন নিষ্ঠুর লাগে! তবু সত্য সহজ সত্য সুন্দর।
    প্রত্যুত্তর . ১৯ মে, ২০১১
  • বিন আরফান.
    বিন আরফান. গল্প শেখানো যায় না, কিন্তু শেখা যায়. শব্দ চয়ন ভালো থিম সুন্দর আবেগ প্রবল. কিন্তু সম্পূর্ণ গল্পে পরিনত হয়নি. কয়েক টি গুছানো সংলাপ হয়েছে. যেটাকে মোটামুটি বলা যায়. আরো ভালো করতে চেস্টা চালিয়ে যান. শুভ কামনা রইল.
    প্রত্যুত্তর . ২৩ মে, ২০১১
  • শিশির সিক্ত পল্লব
    শিশির সিক্ত পল্লব চমৎকার...চালিয়ে যাও বন্ধু....শুভকামনা রইলো...তবে একটু সচেতন হবে...ভোট করলাম
    প্রত্যুত্তর . ২৪ মে, ২০১১