বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৬ সেপ্টেম্বর ১৯৭৮
গল্প/কবিতা: ৮টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

৮৯

বরষা ক্ষুরধারা খরপরশা- তোরা আজ যাসনে ঘরের বাহিরে !

বর্ষা আগস্ট ২০১১

হে অভিযাত্রী ! আমরা ছিলাম যাত্রী সহযাত্রী

বন্ধু জুলাই ২০১১

অসম প্রেম আর অসীম দুঃখবোধ

কষ্ট জুন ২০১১

বন্ধু (জুলাই ২০১১)

মোট ভোট ৮৯ বন্ধুতা ! এক সুতা

দেওয়ান লালন আহমেদ
comment ৪০  favorite ২  import_contacts ৫৩৩
পিপীলিকার পাখা গজায় মরিবার তরে
আমার সাধ হল যদি পাখা আমার গজাত!
বন্ধুকে সাথে করে যেতাম উড়ে শৈশবে,
ছেলেবেলায় বড়দের কড়া কড়া শাসন
চোখ দুটি বড় হলে উঠত যে কাঁপন ।
পৃথিবীটা মনে হত তিক্ত আর রিক্ত
বাবা মার বকুনি মাস্টার মশাইয়ের রাঙ্গানোতে হতাম সিক্ত।
এসবের মাঝেতে সব ধাপ পেরিয়ে তোমাকে পেলাম এড়িয়ে
আড়ি পেতে আড়ি কেটে কপালে কপাল ঠেসে হলাম বন্ধু
পেরিয়ে যাব আজ বিষাদসিন্ধু!
মাথা মাথা বারি খেলে আর আরেকটা না দিলে গজাবে যে শিং!
তুই এসে শীষ মেরে দিলি এক ঢিং তা তা ধিং তা তা ধিং
আম জাম লিচু লটকন আর বরই সব খেয়ে খেয়ে
বীচিটা ভুল করে খেলে পরে ধরতে ভয়
এই বুঝি পেটের ভিতরে বড় বড় গাছ হয় !
মাঠে মাঠে সকালে আর বিকালে ফুটবলে লাথি
শৈশবে কৈশোরে সারাদিন মাতি এলেবেলে তালেগোলে
আবোল তাবোলে আজো তাই সব খানে
বন্ধু বন্ধু আর বন্ধুতা এক সুতায় গাঁথি ।
(উৎসর্গ – তৌফিক এলাহী বুলেট, মুসা ইব্রাহিম, আশরাফ ইবনে সিদ্দিক রানা, আবুল কালাম আজাদ, সাজ্জাদ আলম নিপুন,এ এইচ এম মাসুম ও সাইফ নিয়ন যারা আমার শৈশব হ্রদয় ও একাত্বা আজোবধি )
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন