বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১৭ আগস্ট ১৯৭৭
গল্প/কবিতা: ৭৫টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৬৩

বিচারক স্কোরঃ ১.৯৮ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৬৫ / ৩.০

চিঠির গল্প.........

প্রেম ফেব্রুয়ারী ২০১৭

ভালবাসার কাব্য.....

প্রেম ফেব্রুয়ারী ২০১৭

স্বপ্নগুলো সেই রয়ে গেলো অধরা.....

কি যেন একটা জানুয়ারী ২০১৭

দিগন্ত (মার্চ ২০১৫)

মোট ভোট ৩৩ প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৬৩ দিগন্ত ছুঁয়ে সবুজ শ্যামল আমার প্রিয় জন্মভূমি.........

এই মেঘ এই রোদ্দুর
comment ২৭  favorite ৪  import_contacts ২,১৬৭
কোন রূপকথা নয়গো বলছি শুনো!
এ আমার দেশ স্বপ্ন ভুমির কথা বলছি...
প্রভাতের স্নিগ্ধ হাওয়ায় পাখির কিচিরমিচির
সুরেলা ধ্বনিতে ঘুম ভাঙ্গে যেথায়..
যেথায় সকালের মিষ্টি রোদ্দুর আঁচড়ে পড়ে আমার জানালায়
রোদ্দুর হাত বাড়িয়ে ডাকে হেঁটে যেতে তার মেঠোপথ ধরে।

ভেজা পথ, ভেজা ঘাস, ভেজা ধূলি বালি কণা...
ঝিরঝির হাওয়ায় পাতাগুলো কাঁপে থিরথির
লাল কমলা ঝরা পাতা যেথায় বিছায়েছে মনোরম গালিচা
সে আর কোথায় বলো! আমার সোনার দেশের মাটিতে।

ঐ যে সবুজ পাতার ফাঁকে চড়ুই, শালিকেরা খেলছে লুকোচুরি
ধূসর রঙ্গা নাম না জানা পাখিটি উড়ছে ডালে ডালে
সে আর কোথায় রূপ কথার দেশে তো নয়
এ আমার সোনার দেশ বাংলাদেশে।

যে মানচিত্রে আঁকা জারি সারি ভাটিয়ালি.......
সুরের খেয়ায় ভেসে বেড়ানো বেলা
টেপরেকর্ডারের সুইচ টিপে শুনি উদাস দুপুরে চিরন্ত মুগ্ধ
ভাটিয়ালি পল্লীগীতির সুর.....
সুরের টানে হারাই বারবার.
না না, সে কোন রূপ কথার দেশে নয়গো
এ আমার চিরসবুজ বাংলার পতাকার ছায়াতলে।

বারোমাস পাখপাখালির কুজন
কোকিলের কুহু কুহু ধ্বনি ভাসে বাতাসে বাতাসে
পাশের ডোবায় রাজহাঁসেরা ভেসে বেড়ায়
টুপ টুপ ডুব দেয় পানকৌড়ি.....
মাছরাঙাটা ঝুপ করে ধরে নিল ঠোঁটে ছোট পুটিমাছটা
সে আর কোথায় দেখবে বল, কোন রূপকথার দেশে নয়তো
এযে আমার সোনার বাংলাদেশে।

ঝোপের আঁড়ালে কে হাসে ওরে !
লাল নীল হলুদ ফড়িং, না না সে নীল প্রজাপতি
তিড়িং বিড়িং নেচে বেড়ায় স্ব-অধীনতায়
ফড়িংয়ের লেজে সুতো বেঁধে ছেড়ে দিয়েছে দুষ্ট খোকা
ছেড়ে দে খোকা, ফড়িং ব্যথা পাবে যে!
অই যে গাঁয়ের কাছ ঘেঁষে বয়ে গেছে স্নিগ্ধ নদী...
বর্ষায় থই থই পানি, শীতে ধূঁ ধূঁ বালিচর..
সে তো আমার প্রিয় জন্মভূমি।

নদীর চরে অবারিত সবুজের মাঝে ফুঠে আছে হলুদ সর্ষেফুল
হাজার প্রজাপতি ফড়িং উড়ছে, ঘুরছে, ফুলের মধু নিচ্ছে ঠোঁটে;
বিকেলের সোনা ঝরা মিষ্টি রোদ্দুর তখনো ডাকে আমায়
আর বলে এসো এসো নতুন আলোর আহবানে ঘুরে আসি
গোধূলীর রক্তিম আভা হতে...... নিয়ে আসি আলো
প্রাথর্নায় হই রত, না না কোন স্বপ্নময় দেশের কথা বলছি না
সেযে আমার জন্মভূমি সে যে আমার প্রানপ্রিয় জন্মভূমি।

যেথায় সবুজ ঘাসের গালিচায় বসে আড্ডা
তরুর ছায়ায় বসে রাখাল বাজায় বাঁশি
দিগন্তজোড়া ফসলের মাঠে দোল খায় ধানের শিষ
সুর ভেসে আসে বাতাসে শোঁ শোঁ শন শন
মুগ্ধতায় বন্ধ দুচোখ যেথায় হয়
সে আর কোথায় হবে!
সে যে আমার সোনার বাংলাদেশে।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন