বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২১ ফেব্রুয়ারী ১৯৯৬
গল্প/কবিতা: ১৫টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

৩৬

জলনৌকো

কি যেন একটা জানুয়ারী ২০১৭

ঈদের শাড়ী

শাড়ী সেপ্টেম্বর ২০১২

আবছা আবছা বাবার স্মৃতি

বাবা জুন ২০১২

প্রিয়ার চাহনি (মে ২০১২)

মোট ভোট ৩৬ অসমাপ্ত ভালবাসা

জাবেদ ভূঁইয়া
comment ২৪  favorite ০  import_contacts ৫৭৬
মেয়েটার সাথে আমার প্রথম দেখা হয় এক বই মেলায় ।হলুদ শাড়ী ,কপালে লাল টিপ পড়ে একটা স্টলের সামনে দাড়িয়ে ছিল ।কি জানি একটা বই দরদাম করছিলও ।এই ফাঁকে আমি খুটিয়ে নাটিয়ে দেখতে শুরু করলাম ।গায়ের রং একটু কালো কালো কিন্তু ওর বড় বড় ডাগর ডাগর চোখের অদ্ভুত নড়নচড়ন আমাকে মূর্তির মত এক জায়গায় দাড় করিয়ে রাখল।আরও একটু ভাল করে দেখবার যেন যেই এগিয়ে যাব অমনি মেয়েটি আমার দিকে তাকিয়ে গেল ।চোখ দুটো আরও সুন্দর লাগল এবার ।আমি হা করে তাকিয়ে রইলাম তখনো ।কিন্তু আশ্চর্য মেয়েটি মোটেও রাগল না ।বরং চোখেরপাতা গুলো একটু উপরে তুলে মৃদু মৃদু হাসতে লাগল ।এবার আমার বোধ হল ।লজ্জা পেয়ে চোখ দুটো নামিয়ে নিলাম ।
কিছুক্ষণ পর চোখ দুটো সামনের দিকে তুললাম ।বুকটা ধক করে উঠল ।মেয়েটা যে সেখানে নেই ।কোথায় গেল ?
এদিক ওদিক মেয়েটাকে খুঁজতে শুরু করল আমার চোখ।লজ্জার হারিয়ে গিয়ে একরাশ কালো দুঃচিন্তা এসে গ্রাস করল আমার মুখমণ্ডলে ।হৃদয় টা যেন হঠাত্ই মরুভূমি হয়ে গেল ।এমন সময়ই পিছন থেকে একটা স্বর ঝনঝনায়ে উঠল: আমাকেই বুঝি খুঁজছেন ?
দ্রুত স্বর অনুসরণ করে ঘুরে দাঁড়ালাম ।সেই মেয়েটাই দাড়িয়ে আছে ।মুখে অদ্ভুত সে হাসি আর ডাগর ডাগর চোখ গুলোর নৃত্য বাহার খেলে চলেছে ওর ।
হঠাত্ করেই লজ্জা এসে আবার গ্রাস করল ।
¤না মানে .... আমতা আমতা করে কিছু বলার চেষ্টা করলাম আমি ।কিন্তু মুখ দিয়ে কিছুই বের হলনা ।মেয়েটি এবার জোড়ে হেসে উঠল ।আমি বোকার মত হা করে এবারও ওর দিকে তাকিয়ে রইলাম ।সত্যিই ওর হাসিটা বেশ সুন্দর ।
:কি মিস্টার এভাবে তাকিয়েছিলেন কেন ?
মেয়েটার ঝনঝন কণ্ঠে আমার হৃদয় সত্ত্বায় মৃদু আলোড়ন খেলে গেল ।
:কে কে বলল আপনার দিকে তাকিয়ে ছিলাম ? একটা ছোট্ট ঢোক গিলে মেয়েটার প্রশ্নের পাল্টা প্রশ্ন করলাম ।
:অ !ঠিক আছে ,তবে ..তবে আপনি মনে হয় ট্যাড়া ? তাই অন্যদিকে তাকালেন আর আমি মনে করলাম আমার দিকে ...
আমি আর সহ্য করতে পারলাম না ।ওর কথার তীব্র প্রতিবাদ করে বললাম ,আমি ট্যারা না আর অন্য দিক তাকিয়ে ছিলাম না ..
:তারমানে আপনি স্বীকার করলেন যে আপনি ..
:হ্যাঁ আমি আপনার দিকে তাকিয়ে ছিলাম ।লজ্জিত গলায় মেয়েটার কথা মেন নিলাম ।
এমন সময় কেউ একজন ডাকল,এই রুপা ..
বুঝতে পারলাম মেয়েটার নাম রূপা ।
রূপা ,আসছি বলে আমার কাছ থেকে চলে যেতে লাগল ।আমার মনে হচ্ছিল ও আমার হৃদয়ের এক খণ্ড ভেঙ্গে নিয়ে মিলিয়ে যাচ্ছে দূরে...ক্রমশ দূরে ।
...সমাপ্ত...
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন