বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২১ জুলাই ১৯৯৩
গল্প/কবিতা: ২টি

আমাদের ছিনিয়ে আনা বিজয় (ডিসেম্বর ২০১৬)

মানচিত্রের উপর দাঁড়িয়ে থাকে শকুনের সর্দার

সৈনিক তাপস
comment ০  favorite ০  import_contacts ৭৪
বারবার এরকম কিছুই হয়। রামু থেকে নাসিরনগর।
সাতক্ষীরা থেকে ঠাকুরগাঁও, পার্বত্যচট্টগ্রাম থেকে গোবিন্দগঞ্জ।
বাংলাদেশের বুক থেক হৃদয়।

বারবার এরকমই হয়। উল্লাপাড়া থেকে অভয়নগর।
বাগেরহাট থেকে নারায়ণগাঁও, নাটোর থেকে হবিগঞ্জ।
বাংলাদেশের মাথা থেকে পা'য়।

সেই যে একবার শকুনেরা উড়েছিল,
ছোবল মেরে ক্ষতবিক্ষত করেছিল বাংলাদেশের মুখ।

নেড়িকুত্তারা ঘেউঘেউ করে,
দূষিত কলিজায় জন্ম নেয় পুরনো শকুন।
রক্তের লোভে, মাংসের লোভে এবার দল ভারি হয়।

দলবেঁধে প্রকাশ্যে। মাইকে ঘোষণা দিয়ে। যেন বীর!
ঠোকর দেয়। ক্ষতবিক্ষত করে মস্তিষ্ক! উপড়ে ফেলে বাংলাদেশের চোখ!

দূরে দাঁড়িয়ে থাকে দুইএকটি অদ্ভুত প্রাণী।
খুশি হয় কিংবা কিছু যেন বোঝে না, জানে না।
দিন গোনে ডিসেম্বরের।

ধুঁকতে থাকে, জ্বলতে থাকে বাংলাদেশ।
রক্তের ভাগ পাবে, হাঁড়ে দাত বসাবে।
নেড়িকুত্তার দল উচ্ছ্বাসে ভেসে যায়।
মানচিত্রের উপর দাঁড়িয়ে থাকে শকুনের সর্দার।
বাহবা জানায়, কি সৌরবময় বাংলাদেশের ক্ষতবিক্ষত বুক।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন