বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২৯ এপ্রিল ১৯৯৭
গল্প/কবিতা: ১০টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৫

বিচারক স্কোরঃ ২ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.৫ / ৩.০

একটি বেনামী পোস্টকার্ড

আমার আমি অক্টোবর ২০১৬

এবং অন্যান্য

আমার আমি অক্টোবর ২০১৬

গরাদ গলা হাত

ঘৃণা সেপ্টেম্বর ২০১৬

কবিতা - অধরা (জানুয়ারী ২০১৭)

মোট ভোট প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৫ মানুষ! তুমি আছো?

অর্বাচীন কল্পকার
comment ২  favorite ০  import_contacts ৫২
মানুষ! তুমি আছো? নাকি ছিলে?
তোমায় পড়ছে মনে, রংছটা মিছিলে
নাকি যাচ্ছ বিলীন, কঠোর মলীন, অন্ধ কল্পভূমি;
জানতে দিবে, একটুখানি, কেমন আছো তুমি?

মানুষ! তুমি যাচ্ছ নাকি চলে?
নাকি মিথ্যে ফাঁদে, ফেলছো গভীর জলে!
তোমার হালকা মধুর, স্নিগ্ধ সকাল, আগুন গরম ভাতে
বুঝতে দিবে, কোন ছলনায়, গা ঢাকা দাও রাতে?

সে যে অনেক কথা, রইছে জমা নিতি
কেন ধরা দাও? সেটাই তো মোর রীতি!
অবুঝ যতন, কয় ফোঁটা জল, নীল দরিয়ায় নায়ে
মানুষ! তুমি আসবে না আর? ফিরবে না এই গায়ে?

মানুষ! তুমি ঘুমিয়ে গেছ? লুকোচুরি অভিনয়?
আমার দিনের আকাশ ঘোলা, ঘনকালো মেঘময়
মিনতি রাখো, কথা শুনে যাও, চোখডানা দুটি মেল,
তাসের ঘরের তুরুপের তাস, কত বাজি খেলা খেল।

মানুষ! তুমি আছো? ছিলে কভু তুমি বেঁচে
তোমার ললাট, ভাঁজকরা থাক, ক্লান্ত তুমি নেচে
রঙ্গ-মাচান, নীলপোড়া ঠোঁট, ছন্দবিমুখ ছড়া
সে যে মানুষ নামের হতভাগা সুখ, অতৃপ্ত অধরা।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন