বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২ ফেব্রুয়ারী ১৯৮২
গল্প/কবিতা: ৩টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

কবিতা - মমতা (মে ২০১৬)

মোট ভোট জানোয়ার

নগর আলী
comment ৪  favorite ০  import_contacts ২০৯
ওরা মানুষের মতোই হাঁটে, চলে, খায়
চেহারায় মানুষের আদল
কিন্তু আমরা দেখি-
ওরা আমাদের কৃষকের কাদামাখা হাত দেখে নাক সিটকোয়
ওরা আমাদের শ্রমিকের ঘামে ভেজা কপাল দেখে মূর্খ, জংলি-জানোয়ার বলে গালি দেয়
ওরা আমাদের শিশুদের অপুষ্ট শরীর দেখে মুখটিপে হাসে
ওরা আমাদের বরাদ্দের টাকা মেরে খুঁক খুঁক কাঁশে।
ওরা আমাদের বরাদ্দের টিন দিয়ে ওদের কারখানা গড়ে
ওরা আমাদের রিলিফের চাল, আটা, কম্বল, কেরোসিন মেরে ফুটানি দেখায়,
ঠাঁট বজায় রাখে।

সময় যায়, আমাদের আকাল যায় না
সে খবরও ওরা রাখে না।
ওরা আমাদের টাকায় বিদেশ যায়, ফূর্তি করে
আত্মদানের ভঙ্গিমা দেখায়।
ওরা আমাদের টাকায়,
ফকির-মিসকিন-গরীবের টাকায়,
ওরা আমাদের শিশুদের টাকায়
ক্যাডার পোষে,
মদ খায়,
মাগীবাজি করে।

ওরা ওদের ছেলে-মেয়েদের বিদেশে পড়ায়
অথচ খবর রাখে না
আমাদের কতজন শিশু না খেয়ে থাকলো,
কতজন শিশুর নেই বই।
আমাদের শিশুদের পাঠ্য বইয়ে অজস্র ভুল
ওরা চোখে দেখে না
ওরা খোঁজ রাখে না।
দেশ চালকের ভূমিকায় বদমায়েশের দল
অর্থের জোরে, গায়ের দাপটে যা খুশি তাই করে।
ক্ষমতার মসনদে মত্ত বন্য জানোয়ার
হিংস্র রাজাধিরাজ,
রাজনীতির চিপাগলিতে কাত করে কেড়ে নেয় সর্বস
আকালুদের করে আরো আকালু,
দেয় না আলো।

মনে রাখ্ রাজাধিরাজ,
মনে রাখ্ বদমায়েশ,
মনে রাখ্ বেশ্যাবাজ,
একদিন জনগণই তোকে দেখাবে শ্রীঘর।
সেই দিন তুই সোজা হবি
সেই দিন তুই মানুষ হবি।
তারচেয়ে সময় থাকতেই তুই পড় অ আ ক খ
তারচেয়ে সময়ের আগেই তুই মানুষ হয়ে বের হ।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন