বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ১ জানুয়ারী ১৯৯৩
গল্প/কবিতা: ১৫টি

সমন্বিত স্কোর

৩.৪২

বিচারক স্কোরঃ ২.২২ / ৭.০
পাঠক স্কোরঃ ১.২ / ৩.০

জোৎস্নাপন্থী বিপ্লব

কি যেন একটা জানুয়ারী ২০১৭

মুক্তপ্রাণ অথবা কথকের গল্প

কি যেন একটা জানুয়ারী ২০১৭

অর্ধজন্মের অর্ধমানব

উপলব্ধি এপ্রিল ২০১৬

ঘৃনা (আগস্ট ২০১৫)

মোট ভোট প্রাপ্ত পয়েন্ট ৩.৪২ আমার অলিখিত ২৭

তুহেল আহমেদ
comment ৮  favorite ০  import_contacts ৬৩৯
জানুয়ারী ২৮,২০১৫
মায়ামী , ফ্লোরিডা ।
সকাল ১০:৫৫

নরম্যান ম্যানলি ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট, কিংস্টোন , জ্যামাইকা থেকে থেকে ছেড়ে আসা ফ্লাইটটি এই মাত্র মাটি ছুলো । মায়ামী ইন্টারন্যাশনাল এয়ারপোর্ট ।
প্লেনের জানালার ওপাশে আকাশ ।
নীল আকাশ ।
ধূষর আকাশ ।
স্বপ্নের আকাশ।
মেঘ বর্ণের আকাশ ।
বেঁচে থাকার আকাশ।
মার্লবরোর ধোঁয়া ছোড়া ছোড়া কোন সন্ধ্যার আকাশ ।
আমি জানি, আমি ছিলাম সে সন্ধ্যায়। দু'দিনের ছুটি থেকেই তো ফিরছি …
কোন সমস্যা হবে?
ধুর কিসের সমস্যা? এখন তো সব ঠিক আছে , ৯ তারিখ থেকে ক্লাস শুরু । নতুন কলেজ , নতুন কোর্স , সব ঠিকঠাক ।
তবু যদি ! নাহ আর ভাবতে পারছি না। ধুরু ধুরু কাঁপছে হৃৎপিন্ডটা ।

মিস্টার আহমেদ ?
ইয়েস ?
আমি কি আপনার আইডেন্টিফিকেশনটি দেখতে পারি?
অবশ্যই । আমি মৃদু হাসলাম সৌজন্যতায় ।
আপনি ঠিক আছেন ।আপনার দিন ভালো কাটুক ।
বলেই অফিসারটি আমায় বিদায় দিলো ।
ইমিগ্রেশন অফিসার থেকে পাসপোর্টটা নেয়ার পর আটকে যাওয়া একটি দীর্ঘশ্বাস বের হলো , যেন চেপে থাকা এক রাজ্যের চাপ মুক্তি ! শেষ বারের সেই মুক্ত অনুভূতি...
পেছন হয়ে নিচে চলে এলাম , এবার চোখের সামনে শুধু বাসা , আমার একান্ত নিজের রাজ্য …

#
দুপুর ১২:০০
কানেক্টিং ফ্লাইটের চেকিং বোর্ডের সামনে ।
-- আপনি কোথা থেকে আসছেন ?
আরেক অফিসারের প্রশ্নে ফিরে তাকালাম , মেয়ে অফিসার ।
কিংস্টোন থেকে -
কিংস্টোন ! জ্যামাইকা ! আপনি দেখতে তো সাউথ এশিয়ান মনে হচ্ছে!
হ্যাঁ , বাংলাদেশ থেকে । আবারও মৃদু হাসলাম ।
তবে জ্যামাইকা গিয়েছিলেন কেন ?
ঘুরতেই ।
ঘুরতে ! আমার উত্তরে যেন উনার বিশাল কৌতুহল !

কিছুক্ষণ পর আরেক বৃদ্ধ অফিসারকে সাথে নিয়ে এলেন মেয়ে অফিসারটি । বৃদ্ধ অফিসার আমাকে এক পাশে ডেকে নিয়ে পাসপোর্ট নিয়ে নিলেন , চেকিংয়ের নামে !
এরপর শুরু হলো ওদের গরু খোঁজা, আমার শরীরের প্রতিটি কর্ণারে হাত নাড়ার পর আমার ব্যাগ । আমার ফেস ওয়াস , ক্রিম , টুথ পেস্ট , পার্ফিউম , এমন কি লোশনেও কি জানি ঢুকিয়ে ঢুকিয়ে চেক করা হচ্ছে ! মাথা ব্যাথার কিছু ট্যাবলেট ছিল বলে সেগুলোর জবাব দিতে দিতে জান কাবাব ! কেন ? কেন ? কেন ?
কয়েক বারে বেশ কয়েক জন অফিসার চেক করলেন !
অবশেষে চলে এলেন CBP'র ফিল্ড অফিসার , যেন বিশাল বড় সন্ত্রাসী ধরা হয়েছে , এবার তথ্যের ঝুড়ি ঝারতে হবে !
মিস্টার আহমেদ , আপনি জ্যামাইকা কেন গিয়েছিলেন ?
হোয়াট'স রং উইথ জ্যামাইকা ? একটু আগে অন্য আরেকজন অফিসারও বার বার এ কথা জিজ্ঞেস করছিলেন ! কিন্তু কেন , স্যার ?
আমরা অবশ্যই আপনাকে বিরক্ত করার কারণ ব্যাখ্যা করবো ।
জ্যামাইকা হলো একটি ব্ল্যাক বিজনেস কান্ট্রি ।হিরোইন , মারিওনার ক্যাপিটাল বলতে গেলেই কিংস্টোন । নর্থ অ্যামেরিকার যত যত চোরাকারবারি হয় তার ৯০% এই মায়ামী হয়ে আসে , যার জন্য আমরা এখানে একটু বেশি চেকিং রাখি ।
মিস্টার আহমেদ , আপনি যে জ্যামাইকা গেলেন ,আপনার প্লেন টিকেট কে দিয়েছিল ? আপনাকে এতক্ষণ যা যা বললাম , আপনি কি এসবের কিছু জানেন ?? …

#
বিকেল ৩:০০
ক্রিমিনাল ইন্টার্ভিউ রোম ,
মায়ামী এয়ারপোর্ট ।

-- আপনি শেষবার কবে মসজিদে গিয়েছিলেন ?
এটা কেমন প্রশ্ন ?
আপনাকে উত্তর দিতে হবে …
শেষ শুক্রবার ।
আপনি শেষ কবে নামাজ পড়েছিলেন ? আমরা আপনার ছবি দেখেছি, আপনি স্মোক করেন , ড্রিঙ্কও করেন,তাই এ হিসেবে আমরা আপনাকে একজন ভালো মুসলিম হিসেবে ধরছি না।
দেখুন , আমি এখন ২৩ , সে হিসেবে আমার অধিকার আছে ,আর আপনারা আমার পার্সোনাল প্রোপার্টি দেখবেন কেন ? আপনারা অবশ্যই আমার প্রাইভেসি ব্রেক করতে পারেন না। শুধুমাত্র জ্যামাইকার প্রোভমেন্টে নিয়েছিলেন না, তবে ?
ঃআমরা আমাদের দেশের সেকিউরিটির জন্য আমাদের যা যা করার তা তা করতে পারি ।
আপনি শুধু সত্যি করে বলে দিন , আপনি কিংস্টোনে কার সাথে দেখা করতে গিয়েছিলেন , ওখানকার কোন মসজিদে যোগাযোগ করেছিলেন ? কোন স্মাগলিনের কারো সাথে কথা হয়েছিল ? আমরা কিন্তু আপনাকে বাথরোমে নিয়ে পায়খানা করিয়ে সেটাও চেক করতে পারি ।আমরা কি করে আপনাকে বিশ্বাস করতে পারি বলুন ?
মাই মম ট্রাস্ট মি ।
হ্যাঁ , দাড়ান , এই যে আপনার মোবাইল স্ক্রীনে আপনার মায়ের ছবি , অনেক সুন্দর উনি , উনার ছবির দিকে তাকিয়ে আমাদের সত্যি কথাটা বলুন ,না হলে শেষ বার যে ছুটিতে দেখেছিলেন মাকে , সেটাই হবে শেষ দেখা ,আর কখনোই দেখতে পাবেন না আপনার মায়ের চেহারা ,আমরা আপনাকে এমন এক জায়গায় নিয়ে যাবো !

#
সন্ধ্যা ৯:০০
ইমিগ্রেশন অফিসার রোম ।

-- আপনি ঠিক আছেন ?
আমার ক্ষিধে লেগেছে অনেক ।
শেষ কবে খেয়েছিলেন ?
শেষ অফিসারকে কিন্তু আমি বলেছিলাম , আমি কাল রাতের পর থেকে কিছু খাইনি ,স্ন্যাক্স মেশিন থেকে খেতে চেয়েছিলাম , নিতে দেয়া হয় নি , আমার কাছে টাকা ছিল ।
আমি খুব দুঃখ জ্ঞাপন করছি এই অসুবিধার জন্য । আপনার জন্য কিছু খাবার আসছে , আসলে স্কেজুয়েলে একটু সমস্যা হয়ে গিয়েছিল কিনা !
এবার আসা যাক আসল কথায় , আপনার ব্যাগে একটা কালো রংয়ের ক্যাপ পাওয়া গিয়েছে , আমরা যতটুকু জানি ওটা আপনাদের ধর্মীয় প্রার্থনায় ব্যবহৃত হয় , এরকম আর কিছু আছে আপনার সাথে ? ধর্মীয় কিছু ? আমরা একটু আলাদা করতে চেয়েছিলাম .....
..

#
রাত ১:০০
ইমিগ্রেশন অফিসার রোম ।

-- আপনি ইজরাইলকে পছন্দ করেন না , তাই না ?
কি? !
" ইজরাইল" , এই দেশের নাম শুনেন নি ?
ও , হ্যাঁ , শুনেছি ।
কি শুনেছেন ?
কি শুনেছি !
আপনি 'ইজরাইল' সম্পর্কে যা যা জানেন, বলতে শুরু করুন।
কি জানেন ? এটাই তো, যে , ইজরাইল মুসলিমদের হত্যা করছে প্যালেস্টাইনে । তাই না ?
আমি তখনো নির্বাক ছিলাম , ঠিক কি বলবো বুঝতে পারছিলাম না !
আপনি ম্যানহাটনে ইজরাইল প্রোটেষ্টের প্রোগ্রামে রেগুলার ছিলেন । ঠিক না ?
ওই গুলো হিউম্যান রাইটস থেকে ছিল , আর ওখানে ইজরাইলের সিটিজেনও কিন্তু ছিলেন অনেক ।
হুম ! আমি আপনার মোবাইলে সে সবের অনেক ছবি পেয়েছি , যে গুলো প্রমাণ করে আপনি ইসরাইল কে ঘৃণা করেন ।
এখানে শুধু ইসরাইলের কথা বলছেন কেন ? আমার মোবাইলে তো পৃথিবীর অনেক দেশেরই মানুষ হত্যার ছবি বা ভিডিও ডকুমেন্টারি আছে , এই যে ২০১২ এ নিউইয়র্কের একটা প্রাইমারি স্কুলে একটা ড্রাঙ্ক ফায়ার করে এক সাথে ৩৩ টা ফার্স্ট গ্রেডের স্টুডেন্টকে মেরে ফেলে ,
কই ?সেগুলো নিয়ে তো কিছু বললেন না !
শুধু কি ইজরাইলই মারে ইজরাইলের সৈন্য মরে না ?
আমরা আমাদের দেশের বহির্ভাগের নিরাপত্তার সার্থেই আপনাকে এখানে নিয়ে আসছি , কথা বলছি , তাই কথা গুলাবেন না ......

মিস্টার আহমেদ , আপনি কি ভয় পাচ্ছেন ?
আমি একটু চোখে হাসি টেনে বললাম ,
আমার কি ভয় পাওয়া উচিত ?

#
রাত ৩:০০
ইমিগ্রেশন অফিসার রোম ।

-- ইউ আর এ মুসলিম ,রাইট ?
ইয়েস ?
হুমম , ইউ আর এ মুসলিম

হোয়াট'স রং উইথ মুসলিম ?
নো , নাথিং এভরিথিং ইজ ফাইন
। .....

#
সকাল ৮:০০
ইমিগ্রেশন অফিসার রোম

-- শুভ সকাল , আপনার কি ভালো ঘুম হয়েছিল রাতে ?
স্যার , শেষের ইন্টার্ভিউ শেষ হয় ৫টার দিকে , পুরো এক দিনের উপর অভুক্ত থাকার পর তখন খাবার দেয়া হয় আমাকে , আর রোমের এয়ার টেম্পারেচারও ছিল মাইনাসে , তখনকার ওই অফিসারকে বলেছিলামও , আমার ব্যাগেজ থেকে জ্যাকেটটা নিতে ,উনি অনুমতি দেন নি । কাগজের মত পাতলা বেডশিটে আর ওই ঠান্ডা ফ্লোরের রোমে কি ঘুমানো যায় !
ওহ ! আমি অনেক বেশি দুঃখিত ,আমি ঠিক বলতে পারি না, তখন ছিলাম না।
এমনকি আমি পানি খেতে চেয়েছিলাম , আমাকে একটা ওয়ান টাইম গ্লাস দিয়ে বলা হয়েছে পাশের বাথরোম থেকে খেয়ে নিতে !
আমি সত্যি দুঃখিত , ওটাই এখানকার নিয়ম কিনা ! তবে আপনি চিন্তা করবেন না , আপনার ব্রেকফাস্ট আসছে , আর আপনার ফাইলও তৈরী হচ্ছে , আপনাকে অন্য একটি জায়গায় নিয়ে যাওয়া হবে ।
আপাতত , আপনাকে দু মিনিট সময় দেবো আমরা ,আপনি চাইলে আপনার পরিবারের কারো সাথে কথা বলতে পারেন ।
ঠিক ইচ্ছে করছে না কথা বলতে কারো সাথে ।
না না ,আপনাকে কথা বলতে হবে তো । উনারা হয় তো আপনাকে নিয়ে চিন্তা করছেন । উনাদের অন্তত পক্ষে শুধু এটা বলবেন , যে , আপনি ভালো আছেন ।
আমি ভালো আছি ?

#
দুপুর ১২:০০
মায়ামী এয়ারপোর্ট বেইজমেন্ট , পুলিশ ভ্যানের সামনে ।

-- হোয়াট'স দ্যাট ?
এটা কিছু না , আমাদের নিয়ম যে,এখান থেকে কাউকে বাইরে নিতে হলে হ্যান্ড কাফ পরিয়ে নিতে হয় ।
তার মানে কি ? আমি কি একজন ক্রিমিনাল ?
আই অ্যাম সরি, আই হেভ নো চয়েজ ।

#
জানুয়ারি ২৯, ২০১৫
দুপুর ৩:০০
ব্রোওয়ার্ড ট্রান্জিশোনাল সেন্টার ,
পমপ্যানো বিচ , ফ্লোরিডা ।

-- গাড়ি থেকে নামিয়ে দেয়ার পর একজন বৃদ্ধ টাইপের অফিসার আমার দিকে এগিয়ে এলেন ভিতরে নিতে ।
আপনি এখন থেকে আমাদের এখানকার মেহমান , আপনার এরিয়ার অনেককেই পেয়ে যাবেন এখানে আশা করি ,সময় ভালো কাটবে । লান্চ হয়েছে ?
নাহ !
শেষ কখন খেয়েছেন ?
কাল রাত ৫ টায় ।
ওহ !
চিন্তা করবেন না , এখন ৩টার উপরে , ৫টায় আমাদের এখানকার মেন সেকশানের ডিনার টাইম , ততোক্ষণ সহ্য করতে পারবেন ?

---------
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন