বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ৩০ জুলাই ১৯৬৯
গল্প/কবিতা: ২০টি

প্রাপ্ত পয়েন্ট

"একমুঠো শূন্যতা"

কি যেন একটা জানুয়ারী ২০১৭

"আশা বেঁধে রাখি"

আমার আমি অক্টোবর ২০১৬

"মনুষ্যত্বের তীব্রতা"

এ কেমন প্রেম? আগস্ট ২০১৬

দুঃখ (অক্টোবর ২০১৫)

মোট ভোট "দুঃখের সীমা রেখা"

মোহাম্মদ আহসান
comment ৮  favorite ১  import_contacts ৫৮০
হাজার বছর আগেই
সূর্য্য চলে গেছে পাটে
চোখ বন্ধ করে পরে আছি
যেন শতাব্দির নির্ঘুম রাত
শব্দেরাও ঘুমিয়ে গেছে
সারা দিনের ব্যস্ততায়,
বাতাসে বিলি কেটে
পত্র পতনের চিৎকার
অথবা পবনের চকিত চরনে
পল্লব শাখায় সুড়সুরি দিয়ে
নিরাবতা ভাঙ্গার অন্যায়
যেন হাজারটা বাজ পরার
অবর্ননীয় নির্মম রসিকতা,
ভাবতে না পারার ধ্যান ভঙ্গ
অনুভবের অনুভতি গুলো
আবার শুরু থেকে শুরুর
ধারাপাত গোনা বন্ধ চোখে
তবুও দিব্বি দেখতে পাওয়া
মানুষের অমানুষ হওয়া
লোভ রিপুর আগুন উস্কে দিয়ে
হুক্কায় গুর গুর শব্দ তুলে
যেন লালায় কলকের আগুন
দমে দমে উস্কে দিয়ে
চোখ জ্বলে ধিকি ধিকি
সভ্যতার মলাট ছিড়ে ছুড়ে ফেলে
নেমে পরে অসভ্যের সুখ নিতে,
দুফোঁট পানি ঝরে পরায়
নিঃশ্বাস এলোমেলো
হাপরের উঠা নামায়
তৃপ্তি ভুলে সম্বিত ফিরে পায়
সাধুর মুখোস খসে পরার ভয়
সাক্ষী মেটাতে খুন পিয়াসী খুনি
ভুলের পর ভুল এর মালা গাঁথে
যাতে শিকলের গন্ধ শৃংখলিত হতে
মানবতার চোখে দুফোঁটা অশ্রু
অথবা এপাশ ওপাশ নির্ঘুম রাত
ঘড়ির কাঁটায় ঝুলে সূর্য্য আসে
তবুও আসেনা স্বস্তির জনপথ
যেখানে মেয়েরা ধর্ষনের পুতুল নয়
তারা যে কোন মা বোন অথবা সন্তান
দুঃখ গুলো জিঞ্জিরে বাধাঁ পিঞ্জরে।
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন