বিজ্ঞপ্তি

এই লেখাটি গল্পকবিতা কর্তৃপক্ষের কোন সম্পাদনা ছাড়াই অথবা উপেক্ষণীয় সম্পাদনা সহকারে প্রকাশিত এবং কর্তৃপক্ষ এই লেখার বিষয়বস্তু, মন্তব্য অথবা পরিণতির ব্যাপারে দায়ী নয়।

লেখকের তথ্য

Photo
জন্মদিন: ২৩ নভেম্বর ১৯৭৫
গল্প/কবিতা: ৩৮টি

অধরা সৌরভ

কি যেন একটা জানুয়ারী ২০১৭

স্বপ্নে দেখা বিভীষিকা

কি যেন একটা জানুয়ারী ২০১৭

স্বপ্নের সিঁড়ি ভেঙে...

আমার স্বপ্ন ডিসেম্বর ২০১৬

অস্থিরতা (জানুয়ারী ২০১৬)

এখনই সময়

ফাহমিদা বারী
comment ২৭  favorite ৪  import_contacts ৯৪৬
সে এক অস্থির বাউণ্ডুলে উড়ুক্কু জীবন...
পদে পদে মাকড়শার জালের মত বিছিয়ে রাখা নিষিদ্ধ আনন্দের লেপ্টানো সুখে,
দু'কূলবিনাশী নষ্টামির উগ্র আহ্বান।
কণ্ঠনালিতে ধেয়ে চলা একঢোক শ্যেন ককটেলে
ছিঁড়ে খুবড়ে নাশ হয় কষ্টার্জিত সভ্যতার অস্থি-চর্মসার আবরণটুকু।
লেলিহান সর্বনাশের লক্‌লকে শিখায় জ্বলতে থাকে তার উপরের খোলস।
লুকিয়ে থাকা সম্মোহনি জাদুতে মিশে থাকে
সর্বস্ব বিকিয়ে দেওয়ার জীবনবাজি।
সম্ভ্রম আর শ্লীলতার উজাড়প্রায় পেয়ালায় শেষ চুমুকটি দিয়ে
শিরায় শিরায় ডাক আসে বুনো কামুক এক অজানা গন্তব্যের দিশায়।
বেড়ে ওঠার সীমাহীন অযত্ন আর অবহেলার যুগপৎ সম্মিলনে,
ভ্রান্তির বীজ রূপ্ত হতে থাকে প্রতিনিয়ত।
ঘুমহীন চোখের পাতায় জেগে থাকে অতীতের দীর্ঘশ্বাসেরা;
জানিয়ে যায় নষ্ট আগামীর আগাম পূর্বাভাষ।
আকণ্ঠ ডুবে থাকা হতাশা আর গ্লানির সর্বগ্রাসী বিষবাষ্পে
মিটমিটিয়ে জ্বলতে থাকে আশা আর সুন্দরের দূর্বল আলোকশিখা।
আশাহীন অজানা গন্তব্যে ধেয়ে চলা এই নিমজ্জমান তরীখানির
শেষ কাণ্ডারি তুমি।
তোমাকেই বলছি...শুনছো তো?
আপনার ভালো লাগা ও মন্দ লাগা জানিয়ে লেখককে অনুপ্রানিত করুন